ফাইজারের প্যাক্সলোভিড ওষুধের অনুমোদন দিলো ইইউ

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ থেকে রোগীকে সারাতে ভ্যাকসিনের পাশাপাশি বিভিন্ন ওষুধ আবিষ্কৃত হচ্ছে। তার মধ্যে অন্যতম ফাইজারের উদ্ভাবিত ওষুধ। ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) দেশগুলোতে করোনা চিকিৎসায় প্রথমবারের মতো যোগ হতে যাচ্ছে ফাইজারের উদ্ভাবিত এই মুখে খাওয়া বড়ি। এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে এনডিটিভি।

প্রতিবেদনে বলা হয়, বৃহস্পতিবার (২৭ জানুয়ারি) ইইউ’র পক্ষ থেকে এ অনুমোদন দেওয়া হয়। ফাইজারের উদ্ভাবিত এই মুখে খাওয়া বড়ির নাম প্যাক্সলোভিড। গবেষণায় দেখা গেছে, করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর মারাত্মক শারীরিক জটিলতার ঝুঁকি কমায় এই ওষুধ। এমনকি করোনার অতিসংক্রামক ধরন ওমিক্রনের রুখতেও বেশ কার্যকর এটি।

এক বিবৃতিতে ইউরোপীয়ান মেডিসিন এজেন্সি (ইএমএ) জানায়, করোনাভাইরাসের চিকিত্সায় প্রথমবারের মতো কোনো বড়ির অনুমোদন দেওয়া হলো। ফাইজারের উদ্ভাবিত প্যাক্সলোভিড ওষুধটি গুরুতর অসুস্থ রোগীদের ওপর প্রয়োগ করা হবে।

এ বিষয়ে ইইউয়ের স্বাস্থ্য বিষয়ক কমিশনার স্টেলা কিরিয়াকিডেস বলেন, করোনার মারাত্মক শারীরিক জটিলতার ঝুঁকিতে থাকা রোগীদের জন্য প্যাক্সলোভিড বড় বদল আনতে পারে। ওমিক্রন ও অন্য ধরনগুলোর বিরুদ্ধে ওষুধটির কার্যকারিতার বড় প্রমাণ দেখা গেছে।

এর আগে এই ওষুধ ব্যবহারের সবুজ সংকেত দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা ও ইসরায়েল।

Leave a Reply

Your email address will not be published.